28 C
Dhaka
Friday, May 20, 2022

Buy now

রানার অটোর এক কোটি শেয়ার বিক্রি

রানার অটোর এক কোটি শেয়ার বিক্রি

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের কোম্পানি রানার অটোমোবাইলস লিমিটেডের ১ কোটি শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছে ব্রামার অ্যান্ড পার্টনার্স বাংলাদেশ।

গত বুধবার (২৭ এপ্রিল) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লক মার্কেটে ৫৭ টাকা দরে উল্লিখিত পরিমাণ শেয়ার কিনে নিয়েছে রানার লুব অ্যান্ড এনার্জি লিমিটেড। যার বাজারমূল্য ছিল ৫৭ কোটি টাকা। পরেরদিন বৃহস্পতিবার স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদের এই তথ্য জানায়।

কোম্পানিটি জানায়, রানার অটোমোবাইলসের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান একই সঙ্গে রানার লুব অ্যান্ড এনার্জি লিমিটেডেরও চেয়ারম্যান। রানার অটোমোবাইলসের মোট শেয়ারে ২৪ দশমিক ৯৪ শতাংশ শেয়ার ছিল ব্রামার অ্যান্ড পার্টনার্সের কাছে। দীর্ঘদিন যাবত এর মধ্য থেকে কিছু শেয়ার বিক্রির চেষ্টা করছে কোম্পানিটি।

কিন্তু শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তির নিয়ম অনুযায়ী, কোনো কোম্পানি লিস্টেড হওয়ার পরবর্তী তিন বছর পর্যন্ত সেই কোম্পানির উদ্যোক্তার শেয়ার লক ইন থাকবে। সম্প্রতি তিন বছর শেষ হওয়ায় কোম্পানিটি নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কাছে আবেদন জানিয়ে সম্মতি পাওয়ার পর এই শেয়ার বিক্রি সম্পন্ন করা হলো।

২০১৯ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ২০০ কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন ১১৩ কোটি ৫৪ লাখ টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ৪২৩ কোটি ২৭ লাখ টাকা। মোট শেয়ার সংখ্যা ১১ কোটি ৩৫ লাখ ৩৯ হাজার ৯৩২টি। এর মধ্যে ৫০ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ শেয়ার রয়েছে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে। এছাড়া প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ২৭ দশমিক ১৩ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে বাকি ২২ দশমিক ৮৩ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই-মার্চ) কোম্পানিটির সমন্বিত আয় হয়েছে ৮২৪ কোটি ২৩ লাখ টাকা। যেখানে আগের অর্থবছরের একই সময়ে আয় ছিল ৮০২ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির সমন্বিত আয় বেড়েছে ২১ কোটি ৮৪ লাখ টাকা বা ২ দশমিক ৭২ শতাংশ।

অর্থবছরের তিন প্রান্তিকে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী সমন্বিত নিট মুনাফা হয়েছে ৪৪ কোটি ৪০ লাখ টাকা। যেখানে আগের অর্থবছরের একই সময়ে মুনাফা ছিল ৪৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির নিট মুনাফা বেড়েছে ৬৫ লাখ টাকা বা ১ দশমিক ৫০ শতাংশ।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ২৭ পয়সা। যেখানে আগের অর্থবছরের একই সময়ে আয় ছিল ২ টাকা ৫০ পয়সা। এ বছরের ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৬৬ টাকা ৪৩ পয়সা।

অন্যদিকে চলতি অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) রানার অটোমোবাইলসের সমন্বিত আয় হয়েছে ২৯৩ কোটি ৯২ লাখ টাকা। যেখানে আগের অর্থবছরের একই সময়ে আয় ছিল ২৭৭ কোটি ১১ লাখ টাকা। আলোচ্য প্রান্তিকে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী সমন্বিত নিট মুনাফা হয়েছে ১৫ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। যেখানে আগের অর্থবছরের একই সময়ে মুনাফা ছিল ১৫ কোটি ১১ লাখ টাকা। আলোচ্য প্রান্তিকে কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ৭৮ পয়সা। যেখানে আগের অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৮৫ পয়সা।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০২০-২১ অর্থবছরে শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে রানার অটোমোবাইলস। আলোচ্য অর্থবছরে কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস ছিল ২ টাকা ৭০ পয়সা। আগের অর্থবছরে যা ছিল ১ টাকা ৯৭ পয়সা। গত বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির সমন্বিত এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৬৫ টাকা ১৬ পয়সায়। আগের অর্থবছর শেষে যা ছিল ৬৩ টাকা ৩৯ পয়সা।

সম্পর্কিত আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

অনুস্মরণ করুন

5,535FansLike
1,200FollowersFollow
2,000SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ নিউজ