22 C
Dhaka
Friday, December 9, 2022

Buy now

বাবার দাফন শেষ হওয়ার পর এলো প্রবাসী ছেলের মৃত্যুর খবর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে বৃদ্ধ বাবার দাফন শেষ হওয়ার পর এলো প্রবাসী ছেলের মৃ’ত্যুর খবর। মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় সাইপ্রাসের একটি হাসপাতা’লে চিকিৎসাধীন অবস্থা তিনি মা’রা যান।

মৃতরা হলেন- উপজে’লা কুণ্ডা ইউনিয়নের কুণ্ডা বাজার এলাকার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক হামিদ হোসেন ও তার সোহেল হোসেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মো. হামিদ হোসেন শ্বা’সক’ষ্টজ’নিত সমস্যায় গত ২০ আগস্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কুমা’রশীল মোড়ে নিউ ল্যাবএইড হাসপাতা’লে ভর্তি হন। পরে ২৫ আগস্ট চিকিৎসাধীন অবস্থায় মা’রা যান।

অন্যদিকে ২৭ জুলাই সাইপ্রাসে থাকা ছেলে সোহেলের শরীরে অ’ক্সিজেনের ঘা’টতি দেখা স্থানীয় একটি হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়। পরে করোনাভাইরাস পরীক্ষা’য় তার পজিটিভ আসে। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবন’তি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য সোহেলকে অন্য আরেকটি হাসপাতা’লে পাঠানো হয়। সেই হাসপাতা’লে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে মা’রা যান।

হামিদ হোসেনের ভাতিজা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইম’রান মিয়া বলে, আমা’র চাচাকে কবরে রেখে বাসায় আসার পরই ফোন আসে সাইপ্রাসে আমার চাচাতো ভাই সোহেল মা’রা গেছে। তিন বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে সোহেল দ্বিতীয়। সাত বছর আগে স্টুডেন্ট ভিসায় সাইপ্রাস পাড়ি জমায় সে। পড়াশোনার পাশাপাশি সাইপ্রাসের লিমাসলে ডলসি ক্লাবে কাজ করতো। গত বছর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিয়েও করে। এ বছর দেশে আসার কথা থাকলেও করো’নায় তার সে ইচ্ছা আর পূরণ হলো না।

উপজে’লার কুণ্ডা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সহিদুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত হৃদয়বি’দারক। একসঙ্গে তাদের দুজনকে হা’রিয়ে আমরা বাকরু’দ্ধ। আমি হামিদ স্যারের সঙ্গে দুই যুগ শিক্ষকতা করেছি। উনার ছেলে সোহেল আমার ছাত্র ছিল।

সম্পর্কিত আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

অনুস্মরণ করুন

5,535FansLike
1,200FollowersFollow
2,000SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ নিউজ